• আদালত
  • »
  • বরগুনায় মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগে পিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

বরগুনায় মেয়েকে ধর্ষনের অভিযোগে পিতার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড

প্রকাশ : অক্টোবর ৩১, ২০১৯, ১১:১৬ পূর্বাহ্ণ

মোঃ আসাদুল হক সবুজ, জেলাপ্রতিনিধি, বরগুনাঃ বরগুনায় মেয়েকে ধর্ষণের অভিযোগে দায়ের করা মামলায় বাবাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত। একই সঙ্গে ২০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরো ৬ মাসের কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। ২৯ অক্টোবর, মঙ্গলবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষনা করেন। নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের পাবলিক প্রসিকিউটর (পি,পি) অ্যাডভোকেট মোস্তাফিজুর রহমান বাবুল জানান, পাথরঘাটা উপজেলার কাকচিড়া ইউনিয়নের খাশতবক গ্রামের জুয়েল প্যাদা (৪২) বিগত ২০১৭ সালের ২৫ মে তার স্ত্রী সবিনা বেগম বাড়ীতে না থাকার সুযোগে টাইগার নামক কোমল পানীয়’র সাথে নেশাদ্রব্য মিশিয়ে অজ্ঞান করে তার ১৪ বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করে। ঐইদিন কিশোরীর মা সাবিনা বেগম ছোট মেয়েকে নিয়ে বাবার বাড়ি বেড়াতে গিয়েছিলো।

জুয়েল প্যাদার স্ত্রী বাড়ীতে ফিরে আসলে নির্যাতনের শিকার ঐ মেয়ে তার মায়ের কাছে সব কিছু খুলে জানালে ঘটনার তিনদিন পরে গত ২৮ মে নির্যাতিত কিশোরীর নানা আবদুল হামিদ কাজী বাদি হয়ে জুয়েল প্যাদাকে আসামি করে পাথরঘাটা থানায় একটি নিয়মিত মামলা দায়ের করেন। তদন্ত শেষে মামলাটি বিচারের জন্য বরগুনার নারী ও শিশু নির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে পাঠানো হয়। রায় ঘোষণার সময় আসামি জুয়েল প্যাদা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৭ সালের ৫ মে জুয়েল প্যাদা তার মেয়েকে কোমল পানীয় টাইগারের সঙ্গে নেশা জাতীয় দ্রব্য মিশিয়ে অজ্ঞান করে তার মেয়েকে ধর্ষণ করে। জুয়েল প্যাদার স্ত্রী তার বাবা অর্থাৎ ভুক্তভোগী ধর্ষিতার নানাকে জানালে ২৮ মে জুয়েল প্যাদাকে একমাত্র আসামি করে নির্যাতিতার নানা আবদুল হামিদ কাজী থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেন।

 



সর্বশেষ সংবাদ