• top news
  • »
  • বানারীপাড়ায় গভীর রাতে চলছে অবৈধ বালু উত্তোলন বানিজ্য!

বানারীপাড়ায় গভীর রাতে চলছে অবৈধ বালু উত্তোলন বানিজ্য!

প্রকাশ : এপ্রিল ২২, ২০১৯, ১১:১৮ পূর্বাহ্ণ

বানারীপাড়া প্রতিনিধিঃ

বানারীপাড়াবাসী যখন গভীর ঘুমে বিভোর থাকে তখন সন্ধ্যা নদীতে গভীর রাতে একটি “বানিজ্য” হয় যা সবার অলক্ষে থেকে যায় । আর সেই চুরির বানিজ্যটি হচ্ছে অবৈধ ভাবে বালু উত্তোলণ । ওই বালুদস্যু চক্র সুযোগ পেলে দিনের বেলায়ও ড্রেজার দিয়ে বালু উত্তোলণ করে থাকেন। অবৈধ এ বানিজ্যের বিষয়ে সাধারণ মানুষের চোখ ফাঁকি দেওয়া সম্ভব হলেও কিছু অনুসন্ধিসু দৃষ্টি কখনও এড়ানো সম্ভবপর হয় না।

এদিকে বালু উত্তোলনের কারনে ভাঙছে নদী,পুড়ছে কপাল,কাঁদছে হাজারো মানুষ। আর কপাল খুলে আঙ্গুল ফুলে কলা গাছ বনে গেছেন সুবিধাবাদী ও স্বার্থান্বেষী মহল । অনিয়মতান্ত্রিক ও অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের ফলে রাক্ষুসে সন্ধ্যা নদীর ভাঙন তীব্র রূপ ধারণ করেছে।যার গর্ভে ইতিমধ্যে বিলীন হয়ে গেছে বানারীপাড়া উপজেলার বিস্তীর্ন জনপদ। একমাত্র সম্বল ভিটে মাটি ও ফসলী জমি হারিয়ে নিঃম্ব ও রিক্ত হয়ে পড়েছে শতশত পরিবার। সবকিছু হারিয়ে অনেকেই এখন বেছে নিয়েছেন যাযাবর মানবেতর জীবন।

দীর্ঘদিন ধরে সরকারকে রাজস্ব ফাঁকি দিয়ে অবৈধভাবে বালু উত্তোলণ অব্যাহত রাখা হলে নদীর ভাঙন রোধে এলাকাবাসীর দাবীর প্রেক্ষিতে বরিশাল-২ আসনের নব নির্বাচিত সংসদ সদস্য বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সভাপতি মো. শাহে আলম শপথ নেওয়ার পূর্বেই বালু উত্তোলন বন্ধ করে দেন। তার এ উদ্যোগকে সাধুবাদ জানায় এলাকাবাসী। কিন্তু কয়েক দিন না যেতেই নব্য বালু দস্যুরা ভিন্ন কৌশলে গোটা বানারীপাড়াবাসী যখন গভীর ঘুমে বিভোর থাকে ঠিক সেই মধ্য রাতে ড্রেজার দিয়ে চুরি করে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন করেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

এ ব্যপারে কিছুদিন পূর্বে উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান শরীফ উদ্দিন আহমদ কিসলু ও চাউলাকাঠি এলাকার সালাম ঢালী নদীর ভাঙন রোধ করে বির্স্তীণ জনপদকে রক্ষায় বালু উত্তোলণ বন্ধের দাবী জানিয়ে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ করেন। তবে সেখান থেকে বালু উত্তোলণ বন্ধে কার্যকর কোন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়নি।

এদিকে অনিয়মান্ত্রিকভাবে যত্রতত্র ভাবে বালু উত্তোলন প্রসঙ্গে নদী শাসন বিষেষজ্ঞরা জানান নদীর যে স্থানে ভাঙ্গন তীব্ররূপ ধারন করছে সেই স্থান থেকে বালু উত্তোলন করলে নদীর গভীরতা আরও বৃদ্ধি পেয়ে আশপাশের এলাকাও ভাঙ্গন’র কবলে পতিত হয়। বালু দস্যুদের কারনে ইতিমধ্যে সন্ধ্যা নদীর তীরবর্তী উপজেলার উত্তর নাজিরপুর, দক্ষিন নাজিরপুর, দান্ডয়াট, শিয়ালকাঠি, জম্বদ্বীপ, ব্রাক্ষ্মনকাঠী, কাজলাহার, ডুমুরিয়া, ইলুহার, ধারালিয়া, বাসার, নলশ্রী, মসজিদবাড়ি, গোয়াইলবাড়ি, খোদাবখসা, কালির বাজার,চাউলাকাঠি, মীরেরহাট ও খেজুরবাড়ি গ্রামের কয়েক শত একর ফসলি জমি,অসংখ্য বসতবাড়ি, রাস্তা-ঘাট, ব্রিজ-কালভার্ট, স্কুল,কলেজ, মাদ্রাসা,মসজিদ ও মন্দির সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান নদী গর্ভে বিলিন হয়ে গেছে।

উপজেলার ইলুহার বিহারীলাল মাধ্যমিক বিদ্যালয়,মিরেরহাট ও জম্বদ্বীপ সাইক্লোন শেল্টার যে কোন সময় নদী গ্রাস করে ফেলতে পারে। হুমকির মুখে রয়েছে খেজুরবাড়ি আবাসন ও উত্তর নাজিরপুর গুচ্ছ গ্রাম। ভাঙনের কারনে বসত ঘর, ভিটামাটি ও ফসলি জমি সহ সর্বস্ব হারিয়ে নিঃস্ব ও রিক্ত হয়ে পড়েছে শত শত পরিবার।

উল্লেখিত গ্রামগুলো মানচিত্রে থাকলেও নদী গ্রাস করে ফেলায় গ্রাম গুলো বাস্তবে নেই। চলতি বর্ষা মৌসুমে পূনরায় নতুন করে ভাঙ্গনের কবলে পড়েছে প্রায় অর্ধ শতাধিক পরিবার ও শিক্ষা সহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান। শুধু আওয়ামীলীগ সরকার আমলে নয় বিএনপি-জামায়াত জোট সরকার আমলেও বালুদস্যুরা ছিলেন আরও বেপরোয়া ওই সময়ই মূলত গ্রামগুলো নদী গ্রাস করে ফেলে।এর ধারাবাহিকতায় এখনও ভাঙন অব্যাহত রয়েছে।এলাকাবাসী অবৈধ বালু উত্তোলণ বন্ধ সহ এ ব্যপারে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন করার জোর দাবী জানিয়েছেন।

 



সর্বশেষ সংবাদ
বেতাগী চান্দখালীতে গাজাঁ সহ আটক ১ মঠবাড়িয়ায় কলেজ ছাত্রীকে ব্লেড দিয়ে আহতের মামলার প্রধান আসামী দুলাল গ্রেফতার স্বরূপকাঠি পৌর স্বেচ্ছাসেবক লীগের রাজনীতিতে উজ্জ্বল নক্ষত্র সিফাত উল্লাহ নেছার স্বরূপকাঠীতে "৭১ বাংলা অনলাইন টিভির" দুই কথিত সাংবাদিক ইয়াবা সহ আটক কথা রাখলেন পিরোজপুর পুলিশ সুপার, ১০৩ টাকায় দিলেন কনস্টেবল পদে চাকরি বরগুনায় রিফাত হত্যাঃ দেশব্যাপি অভিযান মঠবাড়িয়ায় যুবলীগ নেতাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা বাংলাদেশের সীমান্তে রেড এ্যালার্ট জারী নেছারাবাদ(স্বরূপকাঠী) থানার ওসি’র তৎপরতায় নড়েচড়ে বসে মাদক ব্যবসায়ীসহ সেবিকারা কবি নাসরিন সিমি /একগুচ্ছ কবিতা/ঈশ্বরের হোলি খেলা/ভালো আছি সর্বনাম/দোয়েল পাখির কাব্য/গন্ধরাজ ও ঝড়ের কাব্য/অন্ত্যমিল আছে আমাদের