#
স্বরূপকাঠি পৌরবাসী বৃষ্টির পানিতে যেন বন্ধি
আগস্ট ১, ২০১৯, ৬:০৬ অপরাহ্ণ

সংবাদ প্রতিদিন২৪.কম

পরিকল্পিত ড্রেনেজ ব্যবস্থার কারণে সামান্য বৃষ্টি হলেই পানিতে টইটুম্বুর হয়ে পড়ে পিরোজপুরের স্বরূপকাঠী পৌর শহরের রাস্তা-ঘাট। এতে করে পৌরশহরের রাস্তাগুলো চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। ফলে পৌর এলাকায় বসবাসকারী মানুষদের চরম দুর্ভোগের শিকার হতে হচ্ছে।

১৯৯৮ সালে স্বরূপকাঠি (বর্তমানে নেছারাবাদ) উপজেলা সদরের ৯টি ওয়ার্ড নিয়ে গঠিত হয় স্বরূপকাঠি পৌরসভা। এরপরে ২০০৮ সালে পৌরসভাটি প্রথম শ্রেণিতে উন্নীত হয়। পৌরসভা গঠনের ১০ বছরের মাথায় তা প্রথম শ্রেণির পৌরসভা হিসেবে মর্যাদা পেলেও তুলনামূলকভাবে বাড়েনি স্বরূপকাঠি পৌরসভার সেবার মান। যত্রতত্র ময়লার ভাগাড়, ভাঙ্গাচোড়া রাস্তা আর মশা মাছির উপদ্রুপে ক্রমেই অতিষ্ঠ হয়ে উঠছে নাগরিক জীবন।

মঙ্গলবার একদিনের সামান্য বর্ষনের ফলে বৃষ্টির পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে খোদ পৌর শহরের সামনের পাইলট স্কুল থেকে বাসষ্ট্যান্ড সড়কটি। এছাড়াও থানা রোড, উপজেলা পরিষদের সামনের সড়ক, সরদারবাড়ী সড়ক, সোনালী ব্যাংক রোডসহ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ন সড়কের অধিকাংশ পানিতে নিমজ্জিত হয়ে পড়েছে।

সদর উপজেলা রোডের মো. মাসুদ রানা পলাস জানান, ড্রেনেজ ব্যবস্থা না থাকায় উপজেলা সড়ক সংলগ্ন থেকে অল্প একটু ভিতরে তারসহ কয়েকটি বাসা রয়েছে। অথচ সামান্য কিছু টাকা খরচ করে সেখানে একটি ড্রেন নির্মান করে দিলে এ এলাকার রাস্তা জলমগ্ন হয় না। তবে এটি পৌর কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি গোচর হচ্ছে না। তিনি জানান, সামান্য একটু বৃষ্টিতেই তাদের রাস্তা পানিতে নিমজ্জিত হয়ে থাকে।

স্বরূপকাঠি পাইলট স্কুলের কয়েকজন শিক্ষক জানান, অপরিকল্পিতভাবে ড্রেনেজ নির্মাণের ফলে তাদের বিদ্যালয়ের সামনে সড়ক থেকে পানি নির্গমন হচ্ছে না। এছাড়া ভাঙ্গা রাস্তায় পানি জমে চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এতে তাদেরসহ বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা অনেক কষ্ট পোহাচ্ছে।